1. editor@mvoice24.com : Mahram Hossain : Mahram Hossain
  2. admin@mvoice24.com : admin :
বিনা প্রয়োজনে ঘর থেকে বের হওয়া যাবেনা- জেলা প্রশাসক - MVOICE 24
বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৭:৩০ পূর্বাহ্ন

বিনা প্রয়োজনে ঘর থেকে বের হওয়া যাবেনা- জেলা প্রশাসক

ডেক্স নিউজ
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ৬ জুলাই, ২০২১
  • ২২৪ বার পড়া হয়েছে

এমভয়েস ডেস্ক: সরকারের মন্ত্রিপরিষদ কর্তৃক ১ জুলাই থেকে সপ্তাহব্যাপী কঠোর লকডাউন ঘোষণা করার পর বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে জেলা প্রশাসনের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। করোনার সংক্রমণ রোধে মানুষকে ঘরে রাখতে সরকার কঠোর লকডাউনের সময় ১৪ জুলাই পর্যন্ত বর্ধিত করেছে।

আজ মঙ্গলবার (৬ জুলাই) সকালে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক (ডিসি) মোহাম্মদ মমিনুর রহমান বলেন, সরকারি বিধি নিষেধ অমান্য করে হোটেল-রেঁস্তোরা ও যাবতীয় ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান খোলা রাখলে জরিমানার পাশাপাশি প্রতিষ্ঠান সিলগালা করে দেওয়া হবে। মাস্ক পরাসহ শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণে করোনার সংক্রমণ মাত্রাতিরিক্ত হারে বেড়েই চলছে। আমরা মানুষকে ঘরে রাখতে চাই।

চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মমিনুর রহমান আরও বলেন, করোনার সংক্রমণকে ভয় না করে বিভিন্ন অজুহাতে ও বিনা প্রয়োজনে মানুষ ঘর থেকে বের হচ্ছে। প্রশাসনের চোখকে ফাঁকি দিয়ে হোটেল-রেস্তোরাঁসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠান খোলা রাখছে। যৌথ অভিযানে তাদের অজুহাত দেওয়ার সুযোগ নেই।

তিনি বলেন, সড়কে ভাড়ায় চালিত যানবাহনের বিরুদ্ধে এবং বিনা প্রয়োজনে কেউ ঘর থেকে বের হলে জরিমানাসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে মানুষ ঘর থেকে বের হচ্ছে এবং জড়ো হচ্ছে। মানুষ জড়ো হওয়ার কারণে করোনার সংক্রমণ দিনের পর দিন বাড়ছে। মানুষকে সচেতন করার জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ৬টি গাড়িতে মাইক বসিয়ে নগরের অলিগলিতে প্রচার-প্রচারণা কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। করোনা প্রতিরোধে প্রতিদিন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত মাইকিংয়ের মাধ্যমে মানুষকে জানান দেওয়া হবে। অতি জরুরি প্রয়োজন ছাড়া রাস্তায় বের হলেই পথচারীকেও জরিমানা করা হবে। আমরা সবাই মিলে একসঙ্গে কাজ করলে কঠোর লকডাউন বাস্তবায়ন করতে পারব।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এসএম জাকারিয়া, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মোছাম্মৎ সুমনী আক্তার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) আ.স.ম জামশেদ খোন্দকার, র‌্যাবের সিনিয়র সহকারী পরিচালক মো. নুরুল আবছার, জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট,পুলিশ, র‍্যাব ও অনসার সদস্যরা।

চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে ১ হাজার ৮৯০টি নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ৬৬২ জনের। এর মধ্যে নগরে ৪৪৯ জন এবং উপজেলায় ২১৩ জন। এ নিয়ে মোট আক্রান্ত ৬১ হাজার ৫৮৯ জন। এইদিন করোনায় ৯ জন মারা গেছেন। এর মধ্যে ৭ জন উপজেলায় এবং ২ জন নগরে।

১৪ উপজেলার প্রায় প্রতিটিতেই বেড়েছে সংক্রমণ। দক্ষিণ চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলায় ১০ জন, সাতকানিয়ায় ১ জন, বাঁশখালীতে ৯ জন, আনোয়ারায় ৬ জন, চন্দনাইশে ২ জন, পটিয়ায় ৮ জন ও বোয়ালখালীতে ১০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে গতকাল। উত্তর চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় ১৩ জন, রাউজানে ২০ জন, ফটিকছড়িতে ৩২ জন, হাটহাজারীতে ২১ জন, সীতাকুণ্ডে ৪১ জন, মিরসরাইতে ৩৮ জন ও সন্দ্বীপে ২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

এদিকে লকডাউন বাস্তবায়ন করতে প্রশাসনের প্রচেষ্টার মধ্যেও চট্টগ্রাম নগরীতে প্রাইভেট গাড়ি, ভাড়ায় চালিত বিভিন্ন গাড়ি ব্যাপক হারে রাস্তায় চলাচল করতে দেখা গেছে। এছাড়া প্রতিনিয়ত চলছে অলিতে গলিতে মাস্ক বিহীন মানুষের আড্ডা।

মোঃ কামাল হোসেন/এএএম/এমএমএইচ/৭

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরো ......
Design Customized By Our Team