1. editor@mvoice24.com : Mahram Hossain : Mahram Hossain
  2. admin@mvoice24.com : admin :
ট্রান্সজেন্ডার সংবাদ পাঠক তাসনুভার ইতিকথা - MVOICE 24
বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৮:১৩ পূর্বাহ্ন

ট্রান্সজেন্ডার সংবাদ পাঠক তাসনুভার ইতিকথা

ডেক্স নিউজ
  • আপডেট সময় : বুধবার, ১০ মার্চ, ২০২১
  • ২২৮ বার পড়া হয়েছে

এমভয়েস ডেস্ক: দেশে প্রথমবারের মতো কোনো ট্রান্সজেন্ডার সংবাদ পাঠক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছে তাসনুভা আনান শিশির। সম্প্রতি একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে তাকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। আগামী সোমবার (০৮ মার্চ) থেকে তার নিয়মিত সংবাদ পরিবেশন করার কথা রয়েছে।

গণমাধ্যমে নিয়োগ পাওয়ার পরেই আলোচনায় এসেছে তাসনুভা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার এই খবর ছড়িয়ে পড়লে অনেকেই তার চেষ্টা ও শ্রমের প্রশংসা করছেন। কিন্তু তার এই সফলতার পেছেন আছে অনেক কষ্ট আর সামাজিক প্রতিবন্ধকতা।

শারীরিক সীমাবদ্ধতা নিয়ে জন্মগ্রহণ করার পর পারিবারিক, সামাজিকভাবে লাঞ্ছনার শিকার হয়ে অনেকটা বিধ্বস্ত হয়ে পড়েছিলেন তাসনুভা। কিন্তু এসব বাধা-বিপত্তি পেরিয়ে নিজেকে সামনে এগিয়ে নিয়ে গেছেন তিনি। আর কারণে আজ সফলতার দ্বারপ্রান্ত পৌঁছেছে তাসনুভা।

শনিবার (০৬ মার্চ) একটি অনলাইন সংবাদমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তাসনুভা এসব কথা বলেন।

১৯৯১ সালের ১৬ জুন খুলনা বিভাগের বাগেরহাট জেলায় জন্মগ্রহণ করেন তাসনুভা। জন্মের পরেই আর চার-পাচঁটা ছেলে মেয়ের মতো বেড়ে উঠেনি তার শৈশবকাল। তখন থেকেই মানুষের হাস্য-রসিকতার শিকার হতে হয়েছে তাকে। এ কারণে অনেকটাই বিধ্বস্ত ছিলেন তিনি।

পড়াশোনা করতে গিয়েও অনেক প্রতিবন্ধকতা পেরোতে হয়েছে তাসনুভাকে। স্কুলে গেলেই নানা মন্তব্য করতে তাকে নিয়ে। এমনকি তাকে হ্যারেজমেন্টও করা হয়েছে অনেকবার। এ কারণে তার পড়ালেখায় বেশ ক্ষতি হয়েছিল বলা জানান তাসনুভা।

তাসনুভা বলেন, স্কুলে আর সবার মতো আমার বন্ধু ছিল না। টিফিনে সবার সাথে এক সাথে বসে খেতে পারতাম না। একসাথে খেলতে পারতাম না। তখন আমি ভাবতাম কিভাবে আমার পড়ালেখা চালিয়ে যাওয়ার জন্য টাকা জোগাড় করব। কারণ সমাজে আমাকে কেউ সহজভাবে নিচ্ছিল না।

তাসনুভা নারায়ণগঞ্জের সরকারি তোলারাম কলেজ থেকে সমাজকর্ম বিভাগে অনার্স-মাস্টার্স শেষ করেন। একইসঙ্গে ব্র্যাক জেমস পি গ্রান্ট স্কুল অব পাবলিক হেলথ থেকে পাবলিক হেলথ বিষয়ে আরও এক বছরের জন্য মাস্টার্স করেন।

তাসনুভা চান অন্য ট্রান্সজেন্ডাররা যোগ্যতা অর্জন করুক। ভালো পেশা বেছে নিক। অন্য ট্রান্সবোনদের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে তাসনুভা বলেন, তদের সবার কাছে আমার একটাই অনুরোধ; যোগ্য হওয়াটা সবচেয়ে বেশি দরকার। তাই তারা যেন আপনার জেন্ডারটা না দেখে গুণটা দেখেন, সেই লক্ষ্যে কাজ করে যাওয়া। সবাই যোগ্যতা দেখেন। কারণ, যোগ্য ব্যক্তিকে কখনো দমিয়ে রাখা যায় না। তাই যার যতটুকু মেধা আছে, জ্ঞান আছে; ততটুকু কাজে লাগিয়ে যোগ্যতা অর্জন করা বেশি জরুরি।

এদিকে, দেশের গণ্ডি পেরিয়ে এবার বাইরের দেশেও তাসনুভার খবর পাঠের সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে।
সম্প্রতি ভারতীয় গণমাধ্যম জিনিউজে তাসনুভাকে নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। ‘Bangladesh-এ প্রথম রূপান্তরকামী সংবাদপাঠিকা তাসনুভা আনন শিশির’ শিরোনামে এই রিপোর্টটি প্রকাশ হয়।
রিপোর্টজুড়ে তাসনুভার জীবনের নানা গল্প তুলে আনা হয়। তাসনুভার আনানের নির্মিতব্য সিনেমার কাজ সম্পর্কেও জানানো হয়।

বেসরকারি টিভি চ্যানেল বৈশাখী টেলিভিশনের, বেসরকারি এই টেলিভিশন চ্যানেল জনসংযোগ কর্মকর্তা দুলাল খান সংবাদমাধ্যমকে বলেন, বৈশাখী টেলিভিশন স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর এই বছর, স্বাধীনতার মাস মার্চে নারী দিবস উদযাপনের প্রাক্কালে আমাদের চ্যানেলের সংবাদে এবং নাটকে দুজন ট্রান্সজেন্ডারকে যুক্ত করেছি। দেশের মানুষ এই প্রথম কোনও পেশাদার সংবাদ বুলেটিনে খবর পাঠ করতে দেখবেন একজন ট্রান্সজেন্ডারকে, যা স্বাধীনতার ৫০ বছরে দেশে আগে কখনো ঘটেনি। তার নাম তাসনুভা আনান শিশির। আন্তর্জাতিক নারী দিবসে শিশির বৈশাখী টেলিভিশনে তার প্রথম সংবাদ বুলেটিন উপস্থাপন করবেন। এর মধ্য দিয়ে দেশে এক নজিরবিহীন দৃষ্টান্ত স্থাপনে বৈশাখী টেলিভিশনের ঐতিহাসিক উদ্যোগের সহযাত্রী হবেন তিনি।

তিনি বলেন, একইভাবে আমরা আমাদের বিনোদন বিভাগের নিয়মিত নাটকের মূল চরিত্রগুলোর একটিতে যুক্ত করেছি আরেকজন ট্রান্সজেন্ডারকে। যার নাম নুসরাত মৌ। যাকে পর্দায় প্রথম দেখা যাবে একইদিন আন্তর্জাতিক নারী দিবসে, ধারাবাহিক নাটক ‘চাপাবাজ’-এর একটি পর্বে। যা প্রচারিত হবে ৮ মার্চ রাত ৯টা ২০ মিনিটে।
আগামী ৮ মার্চ থেকে তাসনুভা আনান নিয়মিত সংবাদ পাঠ করবেন বলেও জানালেন বৈশাখী টেলিভিশনের এই জনসংযোগ কর্মকর্তা।

আআম/এমএমএইচ/৬

 

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরো ......
Design Customized By Our Team