1. editor@mvoice24.com : Mahram Hossain : Mahram Hossain
  2. admin@mvoice24.com : admin :
ঘরের আগুনেই পুড়ছে ছাত্রলীগ: যেকোন সময় সংঘাতের আশঙ্কা - MVOICE 24
রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৩:৩৬ অপরাহ্ন

ঘরের আগুনেই পুড়ছে ছাত্রলীগ: যেকোন সময় সংঘাতের আশঙ্কা

ডেক্স নিউজ
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৭৭৩ বার পড়া হয়েছে

।। মুহাম্মদ মহরম হোসাইন।।

নব গঠিত মহসিন কলেজ ছাত্রলীগের কমিটিসহ ১৩ ইউনিট ছাত্রলীগের কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে তীব্র সমালোচনা এবং রোষানলের মুখে পড়েছেন নগর ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান আহমেদ ইমু ও সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া দস্তগীর।

এ ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ হিসেবে যেকোন সময়ে বড় ধরনের সংঘাতের আশঙ্কা করছেন ছাত্রলীগের বেশ কয়েকজন সাবেক ও বর্তমান নেতৃবৃন্দ। এরজন্য কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের হস্তক্ষেপ প্রয়োজন মনে করছেন।

সাবেক নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, দীর্ঘদিন কমিটি না হওয়ায় ছাত্রলীগের নতুন নেতৃত্বের মধ্যে হতাশা সৃষ্টি হয়েছিল। কমিটি দেওয়ার মাধ্যমে ছাত্রলীগের তৃণমূলে প্রাণসঞ্চার বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে কমিটি দেওয়ার আগে নির্বাহী কমিটির সবাই একসাথে বসে সিদ্ধান্ত নেওয়ার দরকার ছিল।

গত (১০ ফেব্রুয়ারি) বুধবার সন্ধ্যায় সরকারি হাজি মুহাম্মদ মহসিন কলেজ, চকবাজার, বায়েজিদ, পাহাড়তলী, হালিশহর, বাকলিয়া থানা ও ১১, ১২,১৬,১৭,১৯ ও ২৫ নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের কমিটি
একসাথে অনুমোদন দেন ইমু-দস্তগীর। ঐদিন কমিটি দিয়েই ঢাকায় চলে যান ইমু-দস্তগীর।

এদিকে এ কমিটি অনুমোদনকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগে বিরোধ এখন তুঙ্গে। ত্যাগী ও পদবঞ্চিত ছাত্র নেতাদের মধ্যে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে। অনেকটা ঘরের আগুনেই পুড়ছে মহানগর ছাত্রলীগ। হাজারো ছাত্রলীগ নেতাকর্মী ইমু-দস্তগীরের বিরুদ্ধে নগরজুড়ে বিক্ষোভ মিছিল, কুশপুত্তলিকা দাহ এমনকি ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ ঘটাতে দুইজনের ছবিতে জুতোপেটা ও তাদের অবাঞ্চিত ঘোষণা করেছেন। এছাড়াও ইতোমধ্যে বিভিন্ন এলাকায় ইমু-দস্তগীরের অনুমোদিত কমিটির বিরুদ্ধে বিক্ষুব্ধ ও পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা পাল্টা কমিটি ঘোষণা করেছন।
মূলত কমিটি ঘোষণাকে কেন্দ্র করে ত্যাগী ও বঞ্চিত নেতাদের মধ্যে ক্ষোভের দানা বাধতে শুরু করেছে।

ঘোষিত হওয়া ১৩ টি কমিটির নবনির্বাচিত বেশিরভাগ নেতার বিরুদ্ধে অসংখ্য অভিযোগের তীর ছুঁড়ছেন পদবঞ্চিত নেতারা। এরমধ্যে হালিশহর থানা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক আব্দুর রহিম জিসানের বিরুদ্ধে সাইকেল চুরি সহ চাঁদাবাজি আর মহসিন কলেজ ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কাজী নাঈম বিরুদ্ধে দলীয় নেত্রীর ব্যানার ছেঁড়া ও মোবাইল ফোন চুরির ঘটনায় ২০১৬ সালে গণধোলাইয়ের। এবং চকবাজার ওয়ার্ড ছাত্রলীগের নতুন কমিটির সভাপতি সাদ্দাম হোসেন ইভান বিবাহিত ও ছাত্রত্বহীনের অভিযোগ।

মহসিন কলেজ ছাত্রলীগের ঘোষিত কমিটির যুগ্ম-আহ্বায়ক মায়মুন উদ্দিন মামুন অভিযোগ স্বরে বলেন, ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ২৯ বছর পর্যন্ত যাদের বয়স রয়েছে, শুধু তাঁরাই কমিটিতে স্থান পাবেন। কিন্তু কমিটিতে সৎ যোগ্য ও ত্যাগী দের মূল্যায়ন করা হয়নি। রাখা হয়েছে বিতর্কিত ও মাদকাসক্ত বিবাহিত এবং অছাত্রদের। এতে করে আমরা সন্তুষ্ট হতে পারেননি।

বেশ কয়েকজন ত্যাগী ও পদবঞ্চিতরা ইমু-দস্তগীর বিরুদ্ধে অভিযোগের সুরে বলেন, নগরীর বিভিন্ন ওয়ার্ড ও থানা কমিটিতে যাদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তাদের মধ্যে মোবাইল চোর, মাদকাসক্ত, শিবির সম্পৃক্ত, হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত আসামি রয়েছে।

ইমু-দস্তগীর ত্যাগীদের বাদ দিয়ে লাখ লাখ টাকার বিনিময় অছাত্র, বিবাহিত ও অপরাধীদের নিয়মবহির্ভূতভাবে ও গঠনতন্ত্র ভঙ্গ করে কমিটির পদে এনেছেন। যা দলের জন্য ক্ষতি ছাড়া লাভ কিছুই হবে না। এমনটাই অভিযোগ পদবঞ্চিত নেতা কর্মীদের।

এ প্রসঙ্গে জানতে চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান আহাম্মেদ ইমুর মুঠোফোনে বেশ কয়েকবার কল দিয়ে সেটি বন্ধ পাওয়া গেছে।

পাল্টা কমিটি ঘোষণা কতটুকু যুক্তিযত এমন প্রশ্নের জবাবে মহানগর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মহিউদ্দিন মাহি বলেন, নিয়ম অনুযায়ী মেয়াদ উত্তীর্ণ বর্তমান কমিটি নতুন কোনো কমিটির অনুমোদন দিতে পারে না। তারপরও তারা নির্বাহী কমিটির মিটিং ছাড়া এক তরফাভাবে কমিটি ঘোষণা করেছে। যা নিয়মবহির্ভূত। সভাপতি সাধারণ সম্পাদক কমিটির ব্যাপারে নির্বাহী কমিটির কারো সাথে সমন্বয় পর্যন্ত করেননি। তাই আমরা প্রতিবাদস্বরূপ পাল্টা কমিটি দিয়েছি।

কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে মহানগর ছাত্রলীগের চলমান বিক্ষোভ সম্বন্ধে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মাহমুদুল হাসান তুষার বলেন, চট্টগ্রামের বিষয়ে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সবসময়ই নজর রাখছে।
তবে আমাদের প্রত্যেক স্ব স্ব ইউনিট প্রধানরা সংগঠনের গঠনতন্ত্র ও রীতি নীতির আলোকে দায়িত্ব পালন করেন। যদি এ দায়িত্বের কোন ত্রুটি ঘটে সংক্ষুব্ধ যে কোন নেতা কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের দপ্তর সেলে যথাযথ প্রক্রিয়ায় অভিযোগ জানাতে পারেন। সেই অভিযোগের তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবে।

পাল্টা কমিটি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমাদের গঠনতন্ত্রিক রাজনীতিতে পাল্টা কমিটির কোনো প্র্যাকটিস নেই। সংগঠনের গঠনতন্ত্র সমুন্নত রাখার দায়িত্ব আমাদের সবার।

আআম/জাবে/৫

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরো ......
Design Customized By Our Team