1. editor@mvoice24.com : Mahram Hossain : Mahram Hossain
  2. admin@mvoice24.com : admin :
শুভ জন্মদিন প্রিয় পূর্বকোণ *******-****-***** - MVOICE 24
বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৭:৫৮ পূর্বাহ্ন

শুভ জন্মদিন প্রিয় পূর্বকোণ *******—****—*****

ডেক্স নিউজ
  • আপডেট সময় : বুধবার, ১০ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৩২৮ বার পড়া হয়েছে

Faruq Iqbal

আজ ১০ ফেব্রুয়ারী, দিনটি সাংবাদিক হিসেবে আমার জন্য বিশেষ স্মরণীয় এবং প্রীতিময় এক দিন।

১৯৮৬ সালের এইদিনে প্রিয় দৈনিক পূর্বকোণের শুভ আত্মপ্রকাশ ঘটেছিলো এবং সেইসাথে আমারও,কৈশোরে লালিত স্বপ্নের সাংবাদিকতার শুরু এই পূর্বকোণে।

শুভ জন্মদিন প্রিয় পূর্বকোণ।
৩৬ বছর কেটে গেলো প্রায়, ভুলিনি তোমাকে।
তুমি বেঁচে আছো দেদীপ্যমান, দেশজুড়ে, হাজারো, লাখো পাঠকের অন্তুরজুড়ে, দেশে-বিদেশে। আমারতো বটেই!
আজকের এই শুভ দিনে কতো কথাই না মনে উঠে পড়ে !
মনে পড়ে প্রথমেই, পূর্বকোণের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শ্রদ্ধেয় চাচা, আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইউসুফ চৌধুরীকে।
দেশপ্রেমিক ও অসাধারণ দূরদর্শী এই কীর্তিমান মানুষটি সেই ১৯৮৬ সালে একটি আধুনিক দৈনিক উপহার দিয়েছিলেন চট্টগ্রাম তথা দেশবাসীকে। জড়ো করেছিলেন কতো কতো উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত সাংবাদিক।
প্রথম সম্পাদক হয়ে এসে প্রখ্যাত সাংবাদিক কে. জি. মোস্তাফা পূর্বকোণকে একবছরের মাথায় উচ্চমার্গের পত্রিকায় নিয়ে গেলেন। আর এই পত্রিকা গড়ার নেপথ্য নায়ক ছিলেন আমার শ্রদ্ধাভাজন একুশে পুরষ্কার প্রাপ্ত সাংবাদিক, কলামিস্ট, কবি আবুল মোমেন।
আমরা একঝাঁক তরুণ এই পত্রিকার সারথি হলাম। আমাদের নিয়োগ দেওয়া হলো লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা নিয়ে।
মনে পড়ে, আমি সেই সৌভাগ্যবান, প্রায় শ’খানেক প্রার্থীর মধ্যে পরীক্ষায় আমি প্রথম হয়ে পূর্বকোণে নিয়োগ পেয়েছিলাম। অতঃপর শিক্ষানবিশ থেকে জুনিয়র, জুনিয়র থেকে সিনিয়র ও সবশেষে চীফ রিপোর্টার হিসেবে পদোন্নতি পেয়ে কাজ করি দীর্ঘ একযুগ বা তারও কিছু বেশী সময়।
এই দীর্ঘ সময়ে আমি যাঁর স্নেহধন্য হয়েছিলাম, তিনি পূর্বকোণ চেয়ারম্যান মরহুম মোহাম্মদ ইউসুফ চৌধুরী।
একইসাথে, আমি আমার কাজে সর্বতোভাবে সমর্থন, সহযোগিতা ও ভালোবাসা পেয়েছি এই দৈনিকের পরবর্তী সম্পাদক স্থপতি তসলিম উদ্দিন চৌধুরী ( মরহুম) , বর্তমান প্রকাশক জসিম উদ্দিন চৌধুরী, সম্পাদক ডা. ম. রমিজ উদ্দিন চৌধুরীর। নিঃসন্দেহে আমি তাঁদের সকলের কাছে ভালোবাসার ঋণে আবদ্ধ ও কৃতজ্ঞ হয়ে রইলাম।
এখানেই আমার ঋণের শেষ নয়। আমি বিশেষভাবে ঋণী পূর্বকোণের প্রতিষ্ঠাকালীন চীফ রিপোর্টার, আপাদমস্তক সৎ ও মেধাবী, জাঁদরেল সাংবাদিক মোহাম্মদ বেলাল ভাইয়ের কাছে, যিনি আমায় হাতে-কলমে সাংবাদিকতা শিখিয়েছেন। পরম প্রিয় দীক্ষাগুরু বেলাল ভাইয়ের কাছে আমার ঋণ এই জনমে শোধ হবার নয় ।
একটা দীর্ঘ সময় পূর্বকোণে বার্তা সম্পাদক হিসেবে কাজ করেছেন বিশিষ্ট সাংবাদিক ও গবেষক, আমার শ্রদ্ধেয় নাসিরুদ্দিন চৌধুরী, এটিএম মোদাব্বের, যুগ্ম বার্তা সম্পাদক ও রম্য গল্প লেখক আতাউল হাকিম ভাই, সাহিত্য সম্পাদক ছিলেন আমার পরম প্রিয় ও শ্রদ্ধাভাজন, কবি শিশির দত্ত, যিনি পূর্বকোণ প্রকাশনারও অন্যতম কান্ডারী ছিলেন। সিটি এডিটরের দায়িত্ব পালন করেছেন কবি ও সাহিত্যিক আবু সাঈদ জুবেরী ভাই। সিনিয়র সহকারী সম্পাদক ছিলেন মোহাম্মদ ইদ্রিস ভাই(মরহুম) ও কবি স্বপন দত্ত ( প্রিয় স্বপন দা’) , সিফট ইনচার্জ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন ঃ শ্রদ্ধেয় ইস্কান্দার আলী চৌধুরী, আ জ ম ওমর ( মরহুম), বীর মুক্তিযোদ্ধা রাইসুল হক বাহার ভাই (মরহুম), খালেদ হায়াৎ ও সিনিয়র বন্ধু, কবি জ্যোতির্ময় নন্দী, সারোয়ার আলম( আমেরিকা প্রবাসী) , ডেইজি মওদুদ, শোয়েব খান (মরহুম) আলো করে রাখতেন নিউজ ডেস্ক।
আমার সিনিয়র ছিলেন সাংবাদিক নেতা অঞ্জন কুমার সেন, এবিএম ছাদেক ও কামরুল ইসলাম ভাই। প্রিয় সহকর্মী বর্তমান চীফ রিপোর্টার নওশের আলী খান, শহীদুল ইসলাম বাচ্চু ( বর্তমানে আমেরিকা প্রবাসী), ড. আবদুল ওয়াজেদ,রুহুল আমিন রানা, রিয়াজ হায়দার, মোহাম্মদ আলী, সুজয় মহাজন, ফটোগ্রাফার আবদুল্লাহ জাফর সমীর, মঞ্জুরুল আলম মঞ্জু, রূপম চক্রবর্তীর কথা ভুলি কি করে!
পূর্বকোণের ঢাকা ব্যুরোর দায়িত্বে ছিলেন বিখ্যাত সাংবাদিক, মধ্যরাতের অশ্বারোহীখ্যাত ফয়েজ আহমদ ভাই, স্বনামধন্য সাংবাদিক এম এম হাসান ভাই, ফজলুল বারী, আশীষ সৈকত, কামরুল হাসান , মনির হায়দার ও বিকাশ দত্ত এবং বর্তমান ব্যুরো প্রধান, ডিইউজে সভাপতি বন্ধু কুদ্দুস আফ্রাদ।
এঁরা সকলে এমন ব্যক্তিত্বসম্পন্ন সাংবাদিক – যাদের নিয়ে পাতার পর পাতা লিখা যায়।
এতে, নিয়মিত কলাম লিখতেন বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরু বাঙালি ও রাজনীতিক ইদ্রিস আলমসহ আরও অনেকে। এ মুহূর্তে সকলের নাম মনে পড়ছেনা বলে দুঃখিত।
তো, নাসির ভাইকে আমি বাংলাদেশের সেরা বার্তা সম্পাদকদের একজন মনে করি। একটা সময় একাই তিনি পূর্বকোণকে ঊর্ধ্বে তুলে রেখেছেন। আমার রিপোর্টকে খুবই মূল্যায়ন করতেন। গাইড হিসেবে আমাকে পরামর্শ দিতেন। ভালোবাসতেন। আজ যে যাই বলুক না কেন, তিনি আমার শ্রদ্ধার আসন থেকে একচুল নড়বেন না।
স্মৃতি হাতড়াতে গিয়ে আজ মনে পড়ে কতো প্রিয়মুখ, কতো কথা ! আজকের স্বনামধন্য সাংবাদিক কবি ও কথাসাহিত্যিক বন্ধু ওমর কায়সার ফিচার সম্পাদক ও বিশ্বজিৎ চৌধুরী সহকারী সম্পাদক , সত্যজিৎ গবেষক ও শর্ট ফিল্ম পরিচালক আনোয়ার হোসেন পিন্টু ফিচার সম্পাদক এবং বার্তা সম্পাদক হিসেবে কবি আবু তাহের মুহম্মদ ও কলিম সরোয়ার বিভিন্ন সময়ে দায়িত্ব পালন করে গেছেন অত্যন্ত দক্ষতার সাথে। মফস্বল সম্পাদক হিসেবে বন্ধু মঞ্জুর মোর্শেদ তার মেধা ও দক্ষতার সাক্ষর রেখে গেছেন এই দৈনিকে।
বর্তমান ফিচার সম্পাদক, কবি ও কলামিস্ট এজাজ ইউসুফীসহ শিল্পী ও ছড়াকার বন্ধু উত্তম সেন, আলোকময় তলাপাত্র, কম্পিউটার ইনচার্জ প্রিয় রাশেদ ও আরও অনেক নিবেদিতপ্রাণ সহকর্মী বন্ধুদের আমি পেয়েছিলাম সে’সময় । আমরা একই বৃন্তের অনেকগুলো ফুল হয়ে ছিলাম পূর্বকোণে।
পূর্বকোণ আসলে মেধাবী সাংবাদিকদের মনোরম এক ফুল বাগান। আমি ছিলাম সেই বাগানেরই একটি ফুল। বাগানটি এখনো আছে এবং আমি তার সুঘ্রাণ পাই। এটি আরও বিস্তৃত এবং চমৎকার সুশোভিত আকারে প্রসারিত হোক, জন্মদিনে ভালোবেসে এটাই এক প্রাক্তনের চাওয়া।

শুভ হোক তব জন্মদিন, প্রিয় পূর্বকোণ।

ফেইসবুক থেকে সংগৃহীত

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরো ......
Design Customized By Our Team